ঢাকামঙ্গলবার , ৭ মে ২০২৪
  • অন্যান্য
আজকের সর্বশেষ খবর

ক্লিন ইমেজের প্রার্থীকে নির্বাচিত করতে চান ভোটাররা

মো: মহিবুল ইসলাম খুলনা বিভাগীয় ব্যুরো চীফ
মে ৭, ২০২৪ ৫:০৮ অপরাহ্ণ । ১৬ জন
Link Copied!

print news

যশোরের কেশবপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ক্লিন ইমেজের প্রার্থীকে নির্বাচিত করতে চান ভোটাররা। দুর্নীতিমুক্ত, স্বচ্ছ, সৎ ও সমাজে গ্রহণযোগ্য প্রার্থীকে ভোট দিতে চাচ্ছেন ভোটাররা।রাত পোহালেই প্রথম ধাপে এ উপজেলায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে অংশ নেওয়া প্রার্থীরা মাদক, সন্ত্রাস ও চাঁদাবাজ নির্মূলের অঙ্গীকারসহ এলাকার জলাবন্ধতা নিরসন এবং বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ভোট প্রার্থণা করেছেন।এদিকে, তীব্র তাপদাহের কারণে অনেক ভোটার কেন্দ্রে যেতে আগ্রহ প্রকাশ না করলেও সোমবার সন্ধ্যার দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি জনজীবনে কিছুটা স্বস্তি এনে দিয়েছে। এতে ভোটার উপস্থিতি বৃদ্ধির আশা প্রকাশ করেছেন সবাই।কেশবপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে তিনটি পদে ১৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে সাতজন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে পাঁচজন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে রয়েছেন দুইজন। চেয়ারম্যান প্রার্থীরা হলেন যশোর-৬ (কেশবপুর) আসনের সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুল হালিমের ছেলে মঙ্গলকোট ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ-নূর-আল আহসান বাচ্চু (দোয়াত-কলম), বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা কাজী রফিকুল ইসলামের ছেলে উপজেলা যুবলীগের সাবেক আহ্বায়ক কাজী মুজাহীদুল ইসলাম পান্না (হেলিকপ্টার), বর্তমান উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম স¤পাদক নাসিমা আকতার সাদেক (শালিক), উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর স¤পাদক মফিজুর রহমান (ঘোড়া), উপজেলা আওয়ামী লীগের সহপ্রচার স¤পাদক এস এম মাহবুবুর রহমান (মোটরসাইকেল), ত্রিমোহিনী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা ওবায়দুর রহমান (জোড়া ফুল) ও ব্যবসায়ী ইমদাদুল হক (আনারস)।এছাড়া, ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীরা হলেন বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক পলাশ কুমার মল্লিক (উড়োজাহাজ), সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ রানা (মাইক), সাবেক ছাত্রলীগ নেতা সুমন সাহা (চশমা), আব্দুল্লাহ আল মামুন (তালা) ও মনিরুল ইসলাম (টিউবওয়েল)। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীরা হলেন উপজেলা মহিলা লীগের সভানেত্রী রাবেয়া খাতুন (ফুটবল) ও সাবেক পৌর কাউন্সিলর মনিরা খানম (কলস)।জয় পেতে সব প্রার্থীই দিনরাত সমানতালে প্রচার-প্রচারণা চালিয়েছেন। ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে এসব প্রার্থী দিয়েছেন বিভিন্ন প্রতিশ্রুতি। হাটবাজারসহ পাড়া-মহল্লায় বইছে নির্বাচনী উত্তাপ। কে বিজয়ের মালা পরবেন তা নিয়ে চলছে নানা বিশ্লেষণ।বিভিন্ন এলাকা ঘুরে স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, এবার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ক্লিন ইমেজের প্রার্থীকে নির্বাচিত করতে চান ভোটাররা। তাদের অভিমত, দুর্নীতিমুক্ত, স্বচ্ছ, সৎ ও সমাজে গ্রহণযোগ্য ব্যক্তি জনপ্রতিনিধি হলে এলাকার উন্নয়নে কাজ করবেন। এছাড়া, যার কাছে সহজে যাওয়া যাবে, বিপদে-আপদে যিনি পাশে থাকবেন তাকেই ভোটটি দিবেন।উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটানিং কর্মকর্তা রবিউল ইসলাম বলেন, কেশবপুর উপজেলা পরিষদ ১১টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা নিয়ে গঠিত। মোট ভোটার সংখ্যা দুই লাখ ২০ হাজার ৯৫৪ জন। এর ভেতর পুরুষ ভোটার এক লাখ ১১ হাজার ৭৭৫ জন, নারী ভোটার এক লাখ নয় হাজার ১৭৭ জন ও হিজড়া দুই জন। মোট ৯৫টি কেন্দ্রে ইভিএমে ৮ মে প্রথম ধাপে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।