ঢাকাশুক্রবার , ১৭ মে ২০২৪
আজকের সর্বশেষ খবর

চলে গেলেন না ফেরার দেশে অধ্যাপক সৈয়দ বেলায়েত হোসেনের ইন্তেকাল

রিপোর্টার মেহেদুল ইসলাম 
মে ১৭, ২০২৪ ১১:৫৪ অপরাহ্ণ । ৫৮ জন
Link Copied!

print news

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সাংগঠনিক সম্পাদক (ঢাকা বিভাগ) অধ্যাপক সৈয়দ বেলায়েত হোসেন (৫৫) আজ শুক্রবার বেলা ৩.৪৫মি. ঢাকার মিটফোর্ড হাসপাতালে ইন্তেকাল করেছেন। ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। তিনি ঢাকা জেলা দক্ষিণের কেরাণীগঞ্জে সাংগঠনিক কর্মসূচি সদস্য প্রশিক্ষণ কর্মশালায় আলোচনাকালে অসুস্থবোধ করলে তাকে মিডফোর্ড হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাচলাকালে জুমার নামাজের পর বেলা ৩.৪৫ মি. তিনি ইন্তেকালে করেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ১ ছেলে, ৩ ভাই ৩ বোন, আত্মীয় স্বজন, বন্ধু-বান্ধব, রাজনৈতিক সহকর্মী, গুণগ্রাহী রেখে যান। তাঁর ইন্তেকালের সংবাদ সোস্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে বিদ্যুৎগতিতে ছড়িয়ে পরলে সারাদেশে নেতাকর্মীদের মাঝে শোকের ছায়া নেমে আসে। ইন্তেকালের সংবাদ শোনে দলের মহাসচিব প্রিন্সিপাল হাফেজ মাওলানা ইউনুছ আহমাদের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল মিটফোর্ড হাসপাতালে ছুটে যান। এ সময় নেতাকর্মী ও আত্মীয় স্বজনদের মাঝে আবেগঘন পরিবেশের সৃষ্টি হয়।পীর সাহেব চরমোনাইসহ নেতৃবৃন্দের শোক ও দোয়াঅধ্যাপক সৈয়দ বেলায়েত হোসেনের ইন্তেকালে দলের আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই গভীর শোক প্রকাশ করে মরহুমের মাগফিরাত কামনা করেছেন। পৃথক পৃথক বিবৃতিতে মরহুমের মাগফিরাত কামনা করেন ইসলামী আন্দোলনের সিনিয়র নায়েবে আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম শায়খে চরমোনাই, মহাসচিব হাফেজ মাওলানা ইউনুছ আহমদ, যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা গাজী আতাউর রহমান, ঢাকা মহানগর উত্তর সভাপতি প্রিন্সিপাল মাওলানা শেখ ফজলে বারী মাসউদ, সেক্রেটারী মাওলানা আরিফুল ইসলাম, দক্ষিণ সভাপতি মাওলানা মুহাম্মদ ইমতিয়াজ আলম, ইসলামী মুক্তিযোদ্ধা পরিষদ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম, সেক্রেটারী জেনারেল বীর মুক্তিযোদ্ধা খালেকুজ্জামান, ইসলামী আইনজীবী পরিষদের সভাপতি অ্যাডভোকেট লুৎফুর রহমান শেখ, সেক্রেটারী জেনারেল অ্যাডভোকেট মশিউর রহমান।পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, সৈয়দ বেলায়েত হোসেন ছাত্র জীবনে পীর সাহেব চরমোনাই রহ. সানিধ্যে আসেন। অতঃপর ইসলামী ছাত্র আন্দোলন গঠন হলে ১৯৯১ সাল থেকে ছাত্র সংগঠনে সম্পৃক্ত হয়ে বিভিন্ন দায়িত্ব পালন শেষে সর্বশেষ সেক্রেটারী জেনারেলের দায়িত্ব পালন করে ছাত্রত্ব শেষ করেন। এরপর ইসলামী আন্দোলনে যোগ দিয়ে বিভিন্ন দায়িত্ব পালন করে সর্বশেষ ঢাকা বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। আন্দোলন সংগ্রামে অত্যন্ত নিষ্ঠার সাথে সামনে সারি থেকে আন্দোলনে নেতৃত্ব দেন। তার ইন্তেকালে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ একজন ত্যাগী ও নিবেদিতপ্রাণ নেতাকে হারালো। যার অভাব দীর্ঘদিন অনুভূত হবে। মহান রব্বুল আলামিন মরহুমের সকল ভুল ত্রুতি ক্ষমা করে জান্নাতের সর্বোচ্চা মর্যাদা দান করুন। সেইসাথে পরিবার পরিজনকে শোক কাটিয়ে উঠার তৌফিক দিন, আমিন।