ঢাকাসোমবার , ১৮ মার্চ ২০২৪
আজকের সর্বশেষ খবর

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১০৪ তম জন্মদিনে ৩১ তম জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে ইফতার ও দোয়া মাহফিল

Link Copied!

print news

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০৪ তম জন্মদিনে ৩১ তম শিশু দিব উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু এবং আলোকিত বালাদের শীর্ষক৷ আলোচনা সভা, ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। ১৭ ই মার্চ বিকাল চারটায় ২০২৪ রবিবার ভিক্টরী কেক নেন, মিশনপাড়া মোর নারায়ণগঞ্জ এ অনুষ্ঠানটি আয়োজন করা হয়।উক্ত অনুষ্ঠানে সঞ্চালনায় করেন আখতারুজ্জামান সাধারণ সম্পাদক বঙ্গবন্ধু শিশু-কিশোর মেলা এবং জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা কেন্দ্রিয় সহ মহিলা সম্পাদক ফাতেমা আক্তার মাহমুদা ইভা সঞ্চালনা করেন।প্রধান অতিথি সভাপতি -শাহাদাত হোসেন ভূঁইয়া সাজনু, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ নাঃগঞ্জ মহানগর,  ছিলেন। উক্ত অনুষ্ঠানে বক্তব্যে বলেন বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলা সংগঠন একটি জাতির বাতিঘর, আজকের শিশু আগামী দিনের ভবিষ্যৎ, আজকের শিশু আগামী দিনের প্রজন্ম, তাই আমার পক্ষ থেকে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে এই সংগঠনের জন্য সর্বোচ্চ সহযোগিতা করে যাবো,কারণ এটা বঙ্গবন্ধুর বৃহত্তম একটি সংগঠন, আমি এই সংগঠনের মঙ্গল কামনা করছি।সাধারণ সম্পাদক এইচ এ আক্তারুজ্জামান বক্তব্যে বলেন,বঙ্গবন্ধু হচ্ছে একটি গাছের শিকর, গাছ টানলে যেমন শিকর সহ উঠে আসে, তেমনি বঙ্গবন্ধু কথা বলতে গেলে তার মহৎ কাজের ইতিহাস গোল উঠে আসে।বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলা সংগঠন হলো একটি শিশু কিশোরদের, ভবিষ্যৎ, আমরা শিশুদেরকে নিয়েবঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলা কাজ করতে চাই, তিনি বলেন যে চর কিশোর আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্ম তারা যেন সঠিক বিবেচনা করে সঠিক পথ অনুসরণ করে দেশ ও জাতির জন্য ভালো কিছু বয়ে আনে দেশ জাতির জন্য যেন কিছু করতে পারে এই প্রতিযোগিতার মাধ্যমে তাদের মেধা ভবিষ্যৎ কর্মজীবন গড়ে তুলতে পারে এই বাচ্চারা। আমি চাই আপনাদের সবার সহযোগিতায় আমার এই সংগঠন বঙ্গবন্ধু৷ শিশু কিশোর মেলা ভবিষ্যৎ যেন উজ্জ্বল একটি দৃষ্টান্ত হয়ে হতে পারে সেইদিকে আপনাদের দোয়া কামনা করি। কীভাবে বিষন্নতা থেকে দূরে থাকা যায়?বিষন্নতা থেকে মুক্তি পাওয়ার সবচেয়ে বড় বিষয় হলো নিজের চেষ্টা। কিশোর-কিশোরীদের ডিপ্রেশন থেকে মুক্তির জন্য যে বিষয়গুলো সহায়ক হতে পারে তা হলোঃ** রুটিন মাফিক চলা অতএব দৈনন্দিন কার্যক্রমকে একটা রুটিনের মধ্যে করা** লক্ষ্য নিয়ে কাজ করা , ডিপ্রেশনে যেহেতু কাজ করতে ইচ্ছা করে না । তাই প্রতিদিন একটু একটু করে কাজ করার জন্য লক্ষ্য নির্ধারন করা।***সুষম খাদ্য গ্রহন করা*** প্রতিদিন নির্দিষ্ট সময়ে ঘুমাতে যাওয়া এবং সকাল সকাল ঘুম থেকে উঠার অভ্যাস করা।***ইতিবাচক চিন্তা করা , নেতিবাচক চিন্তাকে মন থেকে দূরে সরিয়ে রাখতে হবে।***আনন্দদায়ক কাজের মধ্যে সময় কাটানো***প্রতিদিন অল্প সময় হাটাহাটি করা বা ব্যায়াম করাশিশু কিশোররা পড়ালেখার পাশাপাশি বিভিন্ন কাজে নিয়ে যেতে থাকলে বিভিন্ন যেমন কবিতা লেখা আবৃতি নিত্য গান এগুলোতে তারা পড়ালেখার পাশাপাশি কাজে নিয়োজিত থাকলে ইতিবাচক চিন্তা থেকে দূরে থাকবে।। তিনি আরো বলেন শাহাদাত হোসেন ভূইয়া সাজনু ভাই আজ আমাদের প্রোগ্রামে উপস্থিত থাকাতে আমি অত্যন্ত খুশি উনি আমাদের কে সময় দিয়েছেন আমাদের সাথে ইফতার করবেন এবংআমাদেরকে সব সময় সহযোগিতা করে পাশে পাশে থাকবেন। আপনাদের আপনাদেরকে আমাদের সংগঠনের নিয়োজিত থাকার জন্য নিমন্ত্রণের করা হলো।সভাপতি হাবিবুর রহমান, বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলা নাঃগঞ্জ জেলাআরো উপস্থিত ছিলেন মতিউর সহ-সভাপতি,মতিউর রহমান মোল্লা সাংগঠনিক, হুমায়ুন কবির সাংস্কতিক সম্পাদক, এ. বি. এন জাকারিয়া যুগ্ম সম্পাদক, আল ইমরান যুগ্ম সম্পাদক, ফাতেমা আক্তার মাহমুদ ইভা প্রচারক সম্পাদক, শাহ আলম 50 ঊর্ধ্বে কফি হাউজ শেষ বেলা সভাপতি, জাবেদ আল ফাতিন, জাহানারা বেগম, সহ সমাজ কল্যাণ বিশেষজ্ঞ, সুমি বেগম,সহ সমাজ কল্যাণ, জান্নাতুল ফেরদৌস সহ সংষ্কৃতি সম্পাদক।প্রচারক সম্পাদক ফাতেমা আক্তার মাহমুদ ইভা বলেন আমি এমন একটা সংগঠনে কাজ করার জন্য এই সংগঠনে তো হয়েছি যে সংগঠনের মাধ্যমে শিশুর কিশোরের অভিজ্ঞতা তাদের সম্বন্ধে জানতে পারা এবং তাদের কাজে থেকে তাদের জন্য কিছু করা এটা আমার একটা সুযোগ। তোমরা আমাকে সহযোগিতা করবেন যাতে আমি আমার নিজের দায়িত্বটা পালন করতে পারি এবং দেশ ও জাতির জন্য কিছু করতে পারে আমার জন্য দোয়া করবেন। আমিও সকলের জন্য দোয়া করি। আপনারা সবাই ভাল থাকবেন ।