ঢাকাবুধবার , ২২ মে ২০২৪
  • অন্যান্য
আজকের সর্বশেষ খবর

জৈন্তাপুরে উৎসব মূখর পরিবেশে শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোট গ্রহন সম্পন্ন । 

রুবেল আহমদ রিপোর্টার জৈন্তাপুর উপজেলা 
মে ২২, ২০২৪ ৮:০২ অপরাহ্ণ । ১২০ জন
Link Copied!

print news

জৈন্তাপুর পরিষদ নির্বাচনে বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম লিয়াকত আলী (আনারস) প্রতীক নিয়ে তিনি চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন।তার প্রাপ্ত ভোট ৩৭ হাজার ৯শ ৬ ভোট। তার নিকটম প্রতিদ্বন্দ্বী যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী আব্দুল গফফার চৌধুরী খসরু (কাপ-পিরিচ) প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ২৪ হাজার ১০ ভোট। অপর প্রার্থী ব্যবসায়ী এম ইসমাইল আলী আশিক (দোয়াত কলম) প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৪৮৭ ভোট। এছাড়া চেয়ারম্যান পদে ব্যালট পেপারে বর্তমান উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি কামাল আহমদ এর নাম থাকলেও তিনি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছিলেন। তবুও তিনি (ঘোড়া প্রতীক) নিয়ে পেয়েছেন ১৮৪ ভোট। অপর প্রার্থী আলহাজ্ব হোসেইন আহমদ (মোটর সাইকেল) প্রতীক থাকলেও তিনিও নির্বাচনী মাঠ থেকে সরে দাঁড়িয়েছিলেন। তিনি পেয়েছেন ১০৫ ভোট। এম লিয়াকত আলী প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থীর চেয়ে ১৩ হাজার ৮শত ৯৬ ভোট বেশি পেয়ে তিনি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। ভাইস চেয়ারম্যান পদে সাহাদ উদ্দিন সাদ্দাম (টিউবওয়েল) প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার প্রাপ্ত ভোট ২৩ হাজার ৮শ ৮৬ ভোট। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মাওলানা কবির আহমদ (চশমা) প্রতীক নিয়ে পান ১৫ হাজার ১শ ৪২ ভোট। অপর প্রার্থীদের প্রাপ্ত ভোট হচ্ছে বর্তমান ভাইস-চেয়ারম্যান বশির উদ্দিন (মাইক) ৫ হাজার ৩শ ১৮ ভোট,, নজরুল ইসলাম (উড়োজাহাজ) ২ হাজার ৪শ ১৭ ভোট, আব্দুল খালিক (টিয়া পাখি)১ হাজার ১শ ৭৪ ভোট, আব্দুল হক (বৈদ্যুতিক বাল্ব) ২ হাজার ১ ভোট, মাসুক উদ্দিন (তালা) ২ হাজার ৪শ ৬৯ ভোট ও শংকর দাশ (বই) প্রতীক নিয়ে পান ৯ হাজার ৯শ ৬ ভোট। ভাইস চেয়ারম্যান সংরক্ষিত পদে মোছা: সুনারা বেগম (কলস) প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার প্রাপ্ত ভোট ২৭ হাজার ৮শ ৩২ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সহকারী অধ্যাপক মরহুম ফয়েজ আহমদ বাবর’র সহধর্মিণী মোছা: পারভীন আক্তার (ফুটবল) প্রতীক নিয়ে পান ১৫ হাজার ৭শ ৪২ ভোট। বর্তমান ভাইস-চেয়ারম্যান পলিনা রহমান (সেলাই মেশিন) নিয়ে ৪ হাজার ৭শ ৮০ ভোট ও সাবেক ভাইস- চেয়ারম্যান জয়মতি রানী (প্রজাপতি) প্রতীক নিয়ে পান ১৩ হাজার ১শ ১৯ ভোট। জৈন্তাপুর উপজেলায় ভোটকেন্দ্র ছিল ৪৬ ছিল। মোট ভোটার ছিলেন ১ লাখ ৩৪ হাজার ৬১১ জন। গতকাল ভোটগ্রহণ চলাকালে বিচ্ছিন্নভাবে দু একটি কেন্দ্রে বিশৃঙ্খলা ঘটে। অনিয়মের অভিযোগে ১০ জন ভোটারকে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে অর্থদন্ড প্রদান করা হয়। এর বাইরে কোথাও বড় ধরনের কোন কিছু ঘটেনি। উপজেলায় শান্তিপূর্ণ ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এদিকে জৈন্তাপুর উপজেলায় শান্তিপূর্ণ ও উৎসব মূখর পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ায় উপজেলার সর্বস্থরের জনগণের প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন জৈন্তাপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সহকারি রিটানিং কর্মকর্তা উম্মে সালিক রুমাইয়া। বিভিন্ন মহলের অভিনন্দন জৈন্তাপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নবনির্বাচিত উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এম লিয়াকত আলী, ভাইস-চেয়ারম্যান সাহাদ উদ্দিন সাদ্দাম, মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান মোছা: সুনারা বেগম নির্বাচিত হওয়ায় তাদের প্রতি অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন জৈন্তাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বর্তমান উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কামাল আহমদ, উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীন,সিলেট মহানগর জাসদের সাধারণ সম্পাদক ও জৈন্তিয়া কেন্দ্রীয় পরিষদের সভাপতি গিয়াস আহমদ, জৈন্তিয়া ছিন্নমুল সংস্থা (জেছিস)’র নির্বাহী পরিচালক এটি এম বদরুল ইসলাম, সিলেট জেলা পরিষদ সদস্য মো: শাহজাহান, নিজপাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো: ইন্তাজ আলী, জৈন্তাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফখরুল ইসলাম, ফতেপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রফিক আহমদ, চিকনাগুল ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান চৌধুরী, জৈন্তাপুর বিয়াম ডা: কুদরত উল্লাহ স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ আবু সুফিয়ান বিলাল, জৈন্তাপুর প্রেসক্লাব সভাপতি নূরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান কবির খান, চিকনাগুল খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের প্রেসবিটারিয়ান চার্চের সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ কুমার শর্মা। অভিনন্দন বার্তায় নেতৃবৃন্দ বলেন, নতুন উপজেলা পরিষদের গতিশীল নেতৃত্বে জৈন্তাপুর উপজেলার উন্নয়ন ও অগ্রগতি আরও এগিয়ে যাব।