ঢাকাশুক্রবার , ১৯ এপ্রিল ২০২৪
আজকের সর্বশেষ খবর

বটিয়াঘাটা উপজেলায় ঐতিহাসিক মজিব নগর দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত।

মোঃ স্বপন আহম্মেদ
এপ্রিল ১৯, ২০২৪ ৪:৫৯ পূর্বাহ্ণ । ২৭ জন
Link Copied!

print news

বটিয়াঘাটা উপজেলায় সকাল ১১টায় উপজেলা অডিটোরিয়ামে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয় বুঝে আগাটা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শরীফ আসিফ রহমানের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই গাইন,বীর মুক্তিযোদ্ধা বিনয় কৃষ্ণ সরকার, বীর মুক্তিযোদ্ধা নিরঞ্জন রায়,, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মান্নান, বীর মুক্তিযোদ্ধা দাউদ ফকির, বীর মুক্তিযোদ্ধা দেলোয়ার হোসেন শেখ, বটিয়াঘাটা প্রেসক্লাবের সভাপতি কবির আহাম্মেদ, ডাঃ পলাশ কুমার দাস-উঃ প্রাণি সাপদ কর্মকর্তা উপজেলা শিক্ষাকার্থিতা-মোঃ আলমগীর কবির- উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা-মোঃ আবুবকর মোলা- মোঃ ইসমাইল হোসেন-উঃ হিসাব রক্ষন “কর্মকর্তা আলমগির কবির,অপূর্ব কুমার দাস- নির্বাচন কর্মকর্তা, বাদল কুমার বিশ্বাস, উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা নবনিতা দত্ত উঃ মহিলা বিষয়ক কেমে” রুনা আক্তার সুমি- জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল, নাদিয়া পারভিন- পরিসংখন গুলশান আরা – ইউআরসি, ইনস্যাকটে, শরীফ হোসেন উঃ প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্ম, আসলাম, সহকারি প্রকল্প পরিচালক, বটিয়াঘাটা থানা অফিসার ইনচার্জ রিপন কুমার সরকার, দেবু ঠিকাদার- পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকে, অধ্যাপক মনোরঞ্জন মন্ডল, মাধ্যমিক শিক্ষক কর্মকর্তা জাহিদুর রহমান, সমাজসেবা কর্মকর্তা সর্দার আলী আহসান, বটিয়াঘাটা ফায়ার স্টেশনের মোহাম্মদ আলমগীর হোসেন, কৃষি কর্মকর্তা আবু বকর,

মুজিবনগর সরকারের আনুষ্ঠানিকতা শেষ হওয়ার দু’ঘণ্টার মধ্যেই পাকিস্তান বিমান বাহিনী বোমাবর্ষণ ও আক্রমণ চালিয়ে মেহেরপুর দখল করে। ফলে, সরকারের প্রতিনিধিগণ ভারতে আশ্রয় নিতে বাধ্য হয় এবং সেখান থেকে কার্যক্রম চালাতে থাকে। নয় মাস সশস্ত্র সংগ্রামের মাধ্যমে ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর চূড়ান্ত বিজয় অর্জিত হয় এবং স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা লাভ করে।এই সরকার গঠনের ফলে বিশ্ববাসী স্বাধীনতার জন্য সশস্ত্র সংগ্রামরত বাঙালিদের প্রতি সমর্থন ও সহযোগিতার হাত প্রসারিত করেন। অবশেষে ৩০ লক্ষ শহীদের রক্ত এবং ২ লক্ষ মা-বোনের সম্ভ্রমের বিনিময়ে ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর অর্জিত হয় চূড়ান্ত বিজয়। আমাদের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসে মুজিবনগর সরকারের গুরুত্ব ও অবদান চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে। এছাড়াও বটিয়াঘাটা সকল বীর মুক্তিযোদ্ধা ও বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীগণ সাধারণ মানুষ উপস্থিত ছিলেন।