ঢাকামঙ্গলবার , ১৪ মে ২০২৪
  • অন্যান্য
আজকের সর্বশেষ খবর

হাত দিয়ে না লিখে ও এসএসসি পাস । 

মোঃমোজাম্মেল হক জামালপুর জেলা প্রতিনিধি 
মে ১৪, ২০২৪ ৮:১৭ অপরাহ্ণ । ১২ জন
Link Copied!

print news

জামালপুর জেলা সরিষাবাড়ী উপজেলার ডোয়াইল ইউনিয়নের উদনাপাড়া গ্রামের দিনমজুর দম্পতি জিন্নাহ মিয়া-জোসনা বেগমের ছেলে সিয়াম । জিন্নাহ-জোসনা দম্পতির তিন সন্তানের মধ্যে সিয়াম ছোট। জন্ম থেকেই তার দুটি হাত নাই। দুটি হাত নাই তাতে হাল ছাড়েনি সিয়াম চাপারকোনা মহেশ চন্দ্র স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে মানবিক বিভাগ থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছিলেন।পা দিয়ে লিখে এসএসসি পাশ করেছেন অভাব, দারিদ্র ও শারীরিক প্রতিবন্ধকতাকে পিছনে ফেলে পা দিয়ে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয় মেধাবী শিক্ষার্থী সিয়াম। হাত না থাকলেও অন্যের সাহায্য ছাড়াই পা দিয়ে লিখে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে পাশ করেছে। মনের অদম্য শক্তিতে শারীরিক সীমাবদ্ধতাকে পেছনে ফেলে স্কুল কর্তৃপক্ষের সহযোগিতায় লেখাপড়া চালিয়ে যাচ্ছেপড়াশোনা ও খেলাধুলায়। শুধু তাই নয় ২০১৮ সালে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় ডোয়াইল ইউনিয়নের উদনাপাড়া ব্র্যাক শিশু নিকেতন স্কুল থেকে অংশগ্রহণ করে ভালো ফল লাভ করে। এরপর জেএসসি অংশ নিয়ে পরীক্ষাতেও ভালো ফলাফল লাভ করে সিয়াম। সিয়াম জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলার ডোয়াইল ইউনিয়নের উদনাপাড়া গ্রামের দিনমজুর দম্পতি জিন্নাহ মিয়া-জোসনা বেগমের ছেলে। জিন্নাহ-জোসনা দম্পতির তিন সন্তানের মধ্যে সিয়াম ছোট। জন্ম থেকেই তার দুটি হাত না থাকলেও হাল ছাড়েনি পড়াশোনা ও খেলাধুলায়। ২০১৮ সালে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় ডোয়াইল ইউনিয়নের উদনাপাড়া ব্র্যাক শিশু নিকেতন স্কুল থেকে অংশগ্রহণ করে ভালো ফল লাভ করে। এরপর জেএসসি অংশ নিয়ে পরীক্ষাতেও ভালো ফলাফল লাভ করে সিয়াম।ছোটবেলায় ভাইবোনের সঙ্গে স্কুলে গিয়ে লেখাপড়ার প্রতি প্রবল আগ্রহ জাগে সিয়ামের। বিভিন্ন অক্ষরের ওপর পা দিয়ে ঘষামাজা করতে করতে লেখার অভ্যাসটা শুরু হয়। পরবর্তীতে অভ্যাসের সঙ্গে বাঁ পা দিয়ে লেখা শুরু করে। সিয়ামের মা জোছনা বেগম জানান, ক্রিকেট খেলা, সাঁতার, মোবাইল ফোন চালানো, টিউবয়েল চেপে পানি ভরা থেকে শুরু করে খাওয়া-দাওয়ার মতো সব কাজ সে পা দিয়ে করে।লেখাপড়া করে সরকারি ভালো চাকরি করতে চায় সিয়াম। অভাবের সংসারের হাল ধরতে চায়। জামালপুর ৪ আসনের সংসদ সদস্য আবদুর রসিদ প্রতিবন্ধী হয়েও পা দিয়ে লিখে সিয়াম এসএসসি পরীক্ষায় পাশ করায় তাকে ধন্যবাদ ও অভিনন্দন জানিয়েছেন।  তিনি বলেন, শিক্ষার জন্য যার টার্গেট থাকে, সে অবশ্যই তার লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারে।সিয়াম তার দৃষ্টান্ত। অর্থাভাবে যেন তার পড়াশোনা বন্ধ হয়ে না যায় সেজন্য ভবিষ্যতে যা কিছু প্রয়োজন হবে তার সকল দায়িত্ব নেওয়ার আশ্বাস দেন।